Smiley face

Waltz With Bashir : ডার্ক এন্ড পাওয়ারফুল এনিমেটেড মুভি

waltz-with-bashir-poster
নাফিজ মুনতাসির
শুরুতেই বলে দেই এটি কোন সাধারণ মুভি না। দারুণ পাওয়ারফুল একটা মুভি। মুভিটির জেনার এককথায় বলতে বললে বলবো, সাইকোলজিক্যাল বায়োগ্রাফি/ড্রামা মুভি। পরিচালক Ari Folman ইউনিক এক কাজ করেছেন। নিজের জীবন নিয়েই বায়োগ্রাফি মুভি, তাও আবার এনিমেটেড রূপে। বেশ শক্তিশালী একটি মুভি এটি। সেরা বিদেশী মুভির তালিকায় অস্কার নমিনেশন পাওয়া মুভিগুলোর খুজতে গিয়ে ২০০৮ এর তালিকায় গিয়ে এই মুভিটি পাই। যখন দেখি ইজরায়েল নির্মিত এই মুভিটি এনিমেটেড মুভি তখন বেশ অবাক হলাম! এনিমেশন মুভির তালিকায় নয় একদম সেরা মুভির তালিকাতেই!! এনিমেটেড মুভি আমাকে তেমন একটা টানেনা কিন্তু এই মুভিটা দেখার জন্য বেশ আগ্রহ হচ্ছিলো। তাই নামিয়ে দেখেই ফেললাম।
মুভির পটভূমি ১৯৮২ সালের লেবানন যুদ্ধের সময় কুখ্যাত এবং আলোচিত Sabra and Shatila এর রিফিউজি ক্যাম্পে সংঘটিত প্যালেস্টাইন এবং লেবানীজ সাধারণ জনগণের উপর সংঘটিত নির্মম গণহত্যাকে নিয়ে। যারা সেই গণহত্যার সাথে জড়িত সেই দেশ থেকেই এরকম মুভি বানানো হবে সেটা চিন্তা করে বেশ অবাকই হচ্ছিলাম।
লেবাননের যুদ্ধের ২০বছর পর থেকে মুভির শুরু। মুভির শুরুতেই দেখবেন পরিচালক তার এক বন্ধুর সাথে বসে গল্প করছে। সেই বন্ধু জানায় সে নাকি বেশ কয়েকদিন ধরেই ভয়ংকর এক দু:স্বপ্ন দেখছে। যা তাকে মানসিকভাবে বিপর্যস্ত করে দিয়েছে। বলে রাখি এই দুজনই কিন্তু ১৯৮২ সালে ইসরায়েল সেনাবাহিনীর সদস্য হিসেবে লেবানন যুদ্ধে সরাসরি অংশগ্রহন করে। বর্ণনা শুনে দুজনেই সিদ্ধান্তে আসে যে এই স্বপ্ন ১৯৮২ সালের সেই যুদ্ধেরই মনে দাগ দিয়ে রাখা কিছু ঘটনার স্মৃতি। তখন Ari অবাক হয়ে লক্ষ্য করে সেইসময়ের যুদ্ধের কোন স্মৃতিই সে মনে করতে পারছে না! সেদিনই সে ভয়ংকর এক দু:স্বপ্ন দেখে! কিন্তু এই স্বপ্নের কোন ব্যাখ্যাই সে খুজে পাচ্ছে না। কিছুই যে তার মনে নেই। তাই সে সেসময়ে তার সাথে যুদ্ধে থাকা প্রাক্তন সৈন্য/সহকর্মীদের কাছে ছুটে আসে। লক্ষ্য সেসময়ের তার জীবনের আসল ঘটনা নিজের স্মৃতিতে ফিরে পাওয়া। সবার সাথে কথা বলে আস্তে আস্তে সব মনে পড়তে থাকে তার। কিন্তু তার এই ফিরে পাওয়া স্মৃতি যে ভয়ংকর এক অপরাধের দিকে ছুটে যাচ্ছে সেটা কি সে জানে ? সেও কি তাহলে ঘৃণ্য কোন ঘটনার সাথে জড়িত ছিলো ??

কুখ্যাত এবং আলোচিত Sabra and Shatila এর রিফিউজি ক্যাম্পের গণহত্যায় সেদিন আসলে কারা কারা জড়িত ছিলো ? কারা করলো বা কেনই বা করলো ?? তা মুভিটি দেখেই জেনে নিন।
এইবার নিজের কথা বলি। আমি পুরাই মুগ্ধ এই মুভিটি দেখে। এরকম পাওয়ারফুল সাইকোলজিক্যাল মুভি খুব কমই দেখেছি। যুদ্ধের স্মৃতিতে আসলেই মনের ভিতর গভীর দাগ রেখে যায় এবং আজিবন সেই মানুষটিকে নির্মমভাবে তাড়িয়ে বেড়ায় সেটি পরিচালক একটি এনিমেটেড মুভিতে যে অসাধারণ দক্ষতায় তুলে এনেছেন তা বলে বুঝাতে পারবো না। এককথায় অসাধারণ। মুভিতে পরিচালক সেই স্মৃতি জানার জন্য তার যেসব সহকর্মীদের কাছে গিয়েছিলেন তাদের এক্সপ্রেশন এবং বর্ণনায় স্পষ্ট বুঝা যাচ্ছিলো ঘৃণ্য সেই কাজগুলোর নির্মম স্মৃতি তাদের আজো তাড়িয়ে বেড়াচ্ছে। অনুশোচনায় দগ্ধ হচ্ছে তারা প্রতিনিয়ত। অনেকের কাছে এই স্মৃতি এতটাই ভয়াবহ যে তারা তাদের মন থেকেই সেই সময়টাকে মুছে ফেলেছে।
মুভির এনিমেশনের স্টাইলটি দারুণ ইউনিক লাগলো। এরকম এই প্রথম দেখলাম। দারুণ কিছু দৃশ্য আছে মুভিতে। বিশেষ করে Forman দু:স্বপ্নের সেই দৃশ্যগুলো তো মাইন্ডব্লোয়িং বলা যায়। আবার অপরাধী দমনের নামে কিভাবে সাধারণ মানুষকে মারা হচ্ছিলো সেই দৃশ্যটির উপস্থাপনাটাও দূর্দান্ত। মনেই হচ্ছিলো না এনিমেটেড কিছু দেখছি!! আরেকটা জিনিসের ব্যাপারে প্রসংশা না করেই পারছি না সেটি হলো মুভির ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকের কথা। দারুণ প্রসংশার যোগ্য। মনের মাঝে প্রেসার তৈরী করে তা মুভিটির সাথেই তাল মিলিয়ে গেছে।
পরিচালক Ari Forman ইউনিক কাজ করে গেলেন বলা যায়। এরকম এনিমেটেড মুভি মনে হয় এই প্রথমই দেখলাম। নিজেদের তাড়িয়ে বেড়ানো সেই জীবনের ছোট ছোট ঘটনাকে আস্তে আস্তে জোড়া লাগাতে লাগাতে যেভাবে পরিচালক ভয়াবহ সব ঘটনার দিকে এগিয়ে গেছেন এবং ক্রমে ক্রমে দর্শকদের টেনশনে রেখে তার বর্ণনা দিয়ে গেছেন!!!! অসাম।

সবশেষে বলতে হবে সেই গণহত্যার অভিযোগের তীর যাদের দিকে তাদের হাতে এরকম মুভি নির্মান হওয়া আসলেই অবাক করার মতো। পরিচালক মনে হলো আসল সত্যটাই তুলে ধরতে চেয়েছিলেন এখানে। স্মৃতির জালে কষ্ট দেয়া বাস্তবতার অপূর্ব নিদর্শন। বলা যায় ইসরায়েল দেশটির ঘৃণ্য এক ইতিহাসের সাক্ষী এই মুভি। মুভিটির একদম শেষের দিকে এসে পরিচালক এক ধাক্কা দেয়ার মতো নির্মম কাজ করেছেন। মুভিটির সাথে দারুণভাবে মিলিয়ে দেয়া Sabra and Shatila ক্যাম্পের হত্যাকান্ডের পরের বেশ কিছু দৃশ্যের আসল ফুটেজ জুড়ে দিয়েছেন। যেন এনিমেশনের আড়ালে এতক্ষণ হারানো স্মৃতি খুজতে খুজতে সব মনে পড়ে যায় এবং সাথে সাথে ভয়ংকর সেই ঘটনার বাস্তব দৃশ্য সামনে চলে আসে!! হঠাৎ করেই এই দৃশ্যটি চলে আসায় মনের উপর বেশ প্রেসার ক্রিয়েট করে। এই ভয়ংকর দৃশ্যে এসে আসলেই থমকে দাড়াতে হয়!! অবাক হতে যেতে হয় মানুষের নির্মমতার কাছে। ফুটেজগুলো সবার সহ্য নাও হতে পারে।
** এই মুভির পুরস্কারের পাল্লা বিশাল বড়। সেরা ফরেন মুভির অস্কার না পেলেও সেরা ফরেন মুভি হিসেবে Golden Globe Award সহ প্রচুর পুরস্কার এই মুভির অর্জনের তালিকায় রয়েছে।
*** মুভিটির এনিমেশনের জন্য Yori Goodman এর আবিস্কার করা ইউনিক এক পদ্ধতি ব্যবহার করা হয়েছে। এই এনিমেটেড মুভিটির গ্রাফিক্সের কাজ অন্যদের থেকে বেশ আলাদা।
****পুরো বিশ্ব জুড়ে অধিকাংশ সমালোচক এবং দর্শকদের বেশ প্রিয় মুভি এটি। অনেক বিখ্যাত ক্রিটিক এই মুভিটির ভূয়শী প্রসংশা করেছেন এবং নতুন করে যেসব দর্শক দেখছেন তারাও করছেন।

 

About

POST YOUR COMMENTS

Your email address will not be published. Required fields are marked *

লোগো ডিজাইন - অন্তর রায়

ওয়েব ডিজাইন - এইচ ২ ও

অনলাইনে চলচ্চিত্র বিষয়ক পূর্ণাঙ্গ ম্যাগাজিন 'মুখ ও মুখোশ' । লেখা পাঠাতে ও আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে মেইল করতে পারেন এই ঠিকানায়ঃ mukhomukhoshcinemagazine@gmail.com