Smiley face
  • gallery5
    এ শহর আজ আয়নাবাজির শহর

    আয়নাবাজি সারা দেশে মুক্তি পেয়েছে ৩০ শে সেপ্টেম্বর। মুক্তির পর প্রায় দুই সপ্তাহ হতে চলেছে, কিন্ত মানুষের উন্মাদনা বিন্দুমাত্র কমে নি।  কি এমন জাদু আছে  অমিতাভ রেজা পরিচালিত বহু প্রতীক্ষিত বাংলা চলচ্চিত্র ‘আয়নাবাজি’-তে ?? ছবিটি প্রেক্ষাগৃহে দেখে এসে নিজ অনুভুতির কথা জানাচ্ছেন সুদীপ মজুমদার। আয়নাবাজি। এই শব্দটা কিন্তু বেশ শোনায়, কেমন যেন অদ্ভুত নেশা আছে এর

    বিস্তারিত পড়ুন
  • gallery2
    ভেলকি লাগাল আয়নাবাজি

    বাংলাদেশে এবছর নির্মিত চলচ্চিত্রগুলোর মধ্যে আয়নাবাজি’র জন্য অপেক্ষা ছিল সবচেয়ে বেশি। তার কারণ অনেকগুলো। পরিচালক অমিতাভ রেজা চৌধুরীর কাছে দর্শকদের একটি ফিল্মের প্রত্যাশা ছিল বহু বছরের। অনেক প্রতীক্ষার পর তিনি সেই প্রত্যাশা পূরণ করছেন। অভিনেতা এর আরেকটি আকর্ষণ। তিনি চলচ্চিত্রে অভিনয়ের ব্যাপারে বরাবরই খুব খুঁতখুঁতে। তার আগের সবক’টি ছবিতে তিনি দর্শকদের চাহিদা পূর্ণ করেছেন। গত

    বিস্তারিত পড়ুন
  • 88076d1e1c5fd372ac3a62c20b4e94df-57d3b6bd991c5
    আয়নাবাজির ভেলকি

    আজ সারা দেশে মুক্তি পেয়েছে অমিতাভ রেজা পরিচালিত বহু প্রতীক্ষিত বাংলা চলচ্চিত্র ‘আয়নাবাজি’। ছবিটি প্রেক্ষাগৃহে দেখে এসে অনুভুতির কথা জানাচ্ছেন আশিকুর রহমান তানিম। এটা ঠিক প্রথাগত কোন সিনেমা রিভিউ নয়। সিনেমা সমালোচকেরা সিনেমার ব্যাকরণগত ভুলত্রুটি কাঁটাছেড়া করেন, চুলচেরা বিশ্লেষণ করেন- কিন্তু এটি যেহেতু কোন সিনেমা সমালোচকের লেখা নয়, নিতান্তই আপনাদের মতই এক সিনেমাপাগল দর্শকের লেখা

    বিস্তারিত পড়ুন
  • 0518fdf6c4dd2ed120d7447b4420065e-
    জীবন থেকে নেয়া : গল্প হলেও সত্যি

    স্নিগ্ধ রহমান একটি দেশ একটি সংসার একটি চাবির গোছা একটি আন্দোলন একটি চলচ্চিত্র… অতি সরল পাঁচটি লাইন। কিন্তু এই সারল্যের মাঝে কত না অসাধারণভাবে একটি গল্প লুকিয়ে আছে। একটি দেশের গল্প, সে দেশের মানুষের কষ্টের গল্প, অত্যাচার আর ক্ষতের গল্প। জীবন থেকে নেয়া ছবির বিজ্ঞাপনে উপরোক্ত পাঁচটি লাইন ব্যবহার করা হয়েছিল। জীবন থেকে নেয়ার গল্প

    বিস্তারিত পড়ুন
  • 54a634b6735c828ef9d41eb9f6a86a8f-
    জহির রায়হান : জন্ম যার সময়ের প্রয়োজনে

    স্নিগ্ধ রহমান মজুপুর থেকে মিরপুর। বাংলাদেশের বিচ্ছিন্ন দুটো এলাকা এক হয়ে গিয়েছে একটি নামের কারণে- জহির রায়হান। বাংলা চলচ্চিত্রের উজ্জ্বলতম নক্ষত্র। ১৯৩৫ সালের ১৯শে আগস্ট ফেনীর মজুপুরে জন্ম নেন জহির রায়হান। যদিও জন্মসূত্রে বেশ বড়-সড় একটি নাম পেয়েছিলেন : আবু আবদার মোহাম্মদ জহিরুল্লাহ। ডাক নাম জাফর। ম্যাট্রিক পাশ করে ঢাকায় চলে আসেন জহির রায়হান। ইন্টারমিডিয়েট

    বিস্তারিত পড়ুন
  • m111
    আবার বছর কুড়ি পরে, এই ঘর এই সংসারে

    ১৯৯৬ সালের ৫ই এপ্রিল মুক্তি পেয়েছিল মালেক আফসারী পরিচালিত “এই ঘর এই সংসার”। যাকে বাংলাদেশের শ্রেষ্ঠ ফ্যামিলি ড্রামা বললেও, বোধ করি খুব একটা বাড়িয়ে বলা হবে না। চলচ্চিত্রটির বিশ বছর উপলক্ষ্যে স্মৃতিচারণা করেছেন স্বয়ং মালেক আফসারী। ‘মুখ ও মুখোশ’ এর পক্ষ থেকে পাঠকদের জন্য ঈদের প্রধান উপহার: বাংলাদেশে পিওর ফ্যামিলি ড্রামার সংখ্যা হাতেগোনা। তারপরও আমি

    বিস্তারিত পড়ুন
  • 11
    ‘কাঁকড়া রেইল’ এর ফিল্মপাড়া

    ঐতিহ্যবাহী কাকরাইল ফিল্মপাড়া কেন হারাচ্ছে জৌলুশ সেই কারণ খুঁজেছেন সি. এফ. জামান । কাকরাইল ফিল্মপাড়া, নামটা শুনলেই চোখের সামনে ভেসে উঠে অসংখ্য লোকের ভিড়ে গিজগিজ করা একটা এলাকা। যেখানে চায়ের দোকানে জোরে সাউন্ড দিয়ে গান বাজবে, হোটেল-রেস্টুরেন্টে থাকবে বিভিন্ন তারকার আড্ডা, আর প্রযোজকদের অফিসে থাকবে সিনেমাপ্রিয় মানুষের ভিড়। প্রতিদিন শত ব্যস্ততার মাঝে এখানে সিনেমা সম্পৃক্ত

    বিস্তারিত পড়ুন
  • image001
    নুসফার জন্য ভালোবাসা

    চলচ্চিত্রে আসার পর থেকেই নুসরাত ফারিয়া শিকার হচ্ছেন একের পর এক সমালোচনা ও নেতিবাচক শিরোনামের। এর কতটা তার প্রাপ্য? উত্তর খুঁজেছেন আতাউর রহমান। নুসরাত ফারিয়ার আগমন এমন একটি সময়ে, যখন বাংলাদেশী চলচ্চিত্র প্রবলভাবে ‘নায়িকা’ সংকটে ভুগছে। নুসরাতের আগে-পরে অনেকেই এলেন, আবার চলেও গেলেন। দু’একজন আশার আলো দেখালেও, শেষ পর্যন্ত কিন্তু তা গুড়েবালিই। আর পুরনো নায়িকারা

    বিস্তারিত পড়ুন
  • banner
    ঢালিউডের ঈদের ছবি

    ঈদুল ফিতরকে সামনে রেখে দেশের সিনেমাপাড়া সরগরম হয়ে উঠেছে। ঈদে নতুন মুভি রিলিজ দিতে ব্যস্ত হয়ে উঠেছে প্রযোজনা সংস্থাগুলো। এবারের ঈদে এখন পর্যন্ত চারটি চলচ্চিত্র মুক্তির মিছিলে রয়েছে। আসুন জেনে নেওয়া যাক এই চার ছবির খবর-   শিকারী পরিচালকঃ জাকির হোসেন সীমান্ত ও  জয়দেব মুখার্জী প্রযোজনাঃ এসকে মুভিজ, জাজ মাল্টিমিডিয়া পরিবেশকঃ জাজ মাল্টিমিডিয়া সংলাপ ও

    বিস্তারিত পড়ুন
  • Ostitto-new-bangla-film-by-anonno-mamun-with-arifin-shuvo-nusrat-imroz-tisha
    অস্তিত্ব-অমিত সম্ভাবনার অপমৃত্যু

    হালের আলোচিত চলচ্চিত্র অস্তিত্বের সুরতহাল করেছেন স্নিগ্ধ  রহমান। সমকালীন বাংলাদেশী চলচ্চিত্রে অনন্য মামুন সম্ভবত সবচে বিতর্কিত চরিত্র, সবচে রঙিনও বটে। অনন্য মামুনকে আমরা অনেক ধরণের কাজ করতে দেখি। কখনো তিনি অনন্ত জলিলের সাথে স্বাগতম জানান, আবার পর মূহুর্তে শুধু যৌথ প্রযোজনাকে চাইতে থাকেন। (প্রথমে মামুনকে একচোট গালমন্দ করে) সবাই যখন যৌথ প্রযোজনায় মন দিয়েছে, তখন

    বিস্তারিত পড়ুন

লোগো ডিজাইন - অন্তর রায়

ওয়েব ডিজাইন - এইচ ২ ও

অনলাইনে চলচ্চিত্র বিষয়ক পূর্ণাঙ্গ ম্যাগাজিন 'মুখ ও মুখোশ' । লেখা পাঠাতে ও আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করতে মেইল করতে পারেন এই ঠিকানায়ঃ mukhomukhoshcinemagazine@gmail.com